আপনি আছেন
প্রচ্ছদ > অপরাধ > প্রতিবন্ধীকে ধর্ষণের বিচার জুতাপেটা!

প্রতিবন্ধীকে ধর্ষণের বিচার জুতাপেটা!

 

প্রতিবন্ধীকে ধর্ষণের বিচার জুতাপেটা!

প্রতিচ্ছবি টাঙ্গাইল প্রতিনিধি: টাঙ্গাইলের মির্জাপুরে চিকিৎসার কথা বলে প্রতিবন্ধি এক যুবতীকে ধর্ষণ করেছে বলে অভিযোগ উঠেছে। ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার মহেড়া ইউনিয়নের বলটিয়া গ্রামে। ঘটনা জানাজানির পর ওই ভন্ড চিকিৎসককে গ্রাম্য শালিসে জুতাপেটা করা হয়েছে।

এলাকাবাসী জানান, মানুষিক প্রতিবন্ধী ওই যুবতী তার মা’র সঙ্গে নিজ বাড়িতে থাকতেন। বছর খানেক আগে একই গ্রামের পার্শবর্তী বাড়ির আব্বাস আলী মেয়েটির মায়ের কাছ থেকে তার চিকিৎসার দায়িত্ব নেন।

মাঝে মধ্যে আব্বাস আলী চিকিৎসার কথা বলে রাতে মেয়েটির কক্ষে গিয়ে এক থেকে দেড় ঘন্টা অবস্থান করেন। মেয়েটির পরিবারের পক্ষ থেকেও কোন সন্দেহ করা হয়নি। মাঝে মধ্যে মেয়েটি চিৎকার করে উঠলে মেয়ের মা ভয়ে তার কাছে যেতেন না। সে ভাবতেন তাকে জিনে ধরেছে।

গত শনিবার (২৪জুন) এশার আযানের সময় মেয়েটির মাকে তেল পড়া আনতে কবিরাজ তাদের বাড়িতে যেতে বলেন। মেয়েটির মা এশার আযানের সময় আব্বাস আলীর বাড়িতে চলে যান। এর ফাকে আব্বাস আলী মেয়েটির ঘরে ঢুকে জোর পূর্বক ধর্ষণ করে।

মা কবিরাজের বাড়ি থেকে তেল নিয়ে বাড়ি এসে আব্বাস আলীকে তার বসত ঘরে দেখতে পান। এসময় মা মেয়ের কাছে গিয়ে মেয়েটিকে আপত্তিকর অবস্থায় দেখেন। পরে তিনি রাতেই গ্রামের মাতাব্বরদের জানালে মাতাব্বররা রাতেই শালিসে বসেন এবং আব্বাস আলীকে ১০টি জুতাপেটা করেন।

মেয়েটির মা বলেন, ‘আব্বাস চাচা হয়ে আমার প্রতিবন্ধি মেয়ের এই সর্বনাশ করলো, আমি এর বিচার চাই।’

প্রতিবন্ধী মেয়েটি সাংবাদিকদের বলেন, ‘আব্বাস তাকে সমস্ত শরীরে তেল মালিস এবং ধর্ষণ করে।’

ধর্ষক আব্বাস আলী জানান, মেয়েটির মায়ের অনুরোধে তেল পড়া দিতাম। মেয়ের মা আমার বাড়িতে এসে নিয়ে যেত। ঘটনার দিন ওই বাড়ির উপর দিয়ে বাড়ি আসছিলাম। এসময় মেয়ের মাকে ডাকতে ডাকতে ঘরে ঢুকেছিলাম। এরই মধ্যে মেয়ের মা বাড়ি আসেন।

গ্রাম্য শালিসে জুতা পেটার কারন জানতে চাইলে বলেন, মেয়ের পরিবার আমার বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ করায় গ্রামের মাতাব্বররা জুতা পেটা করেছে।

মহেড়া ইউপি চেয়ারম্যান মো. বাদশা মিয়া জানান, বলটিয়া গ্রামে এক প্রতিবন্ধিকে চিকিৎসার নামে ধর্ষণ করা হয়েছে শুনেছি।

মির্জাপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ মাইন উদ্দিন জানান, এ ধরেণের কোন অভিযোগ থানায় আসেনি। অভিযোগ পেলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করে আমাদের সঙ্গে থাকুন:
symphony

অনুরূপ সংবাদ

উপরে