একাত্তরের প্রসব বেদনা

সালাহ উদ্দিন আহমেদ জুয়েল: ১৯৯৯ সালের ৭ জুন সন্ধ্যা, কানাডার স্যাসকাতুন শহর। তার পাশে বয়ে চলেছে স্যাসকাচিওয়্যান নদী। এ-নদীর পাশের একটি ঘরে বয়ে চলেছে এক নদীকন্যার দু'টি চোখ। নদীকন্যা রাণী। রাণী জয় ম্যোরাল, যে নিজের নাম দিয়েছে 'নদীকন্যা'। ডান কাঁধের উপর দিয়ে তাকালো রাণী, যেনো নির্নিমেষ দেখছে সে কাউকে! ঠোঁটের মিষ্টি হাসিটুকু ছড়িয়ে

দি ভার্জিন কুইন

দি ভার্জিন কুইন

(১) ইতিহাস আমার খুব প্রিয় একটা বিষয়। ডাক্তারি করতে করতে একসময় যখন হাপিয়ে উঠি তখন ইতিহাসের সুধা পান করতে অসম্ভব ভালো লাগে। ইতিহাসের মজার মজার জিনিস পড়তে পড়তে নিজের অজান্তেই চমৎকৃ্ত হই। এই যেমন ধরুন না, আমরা জানি রোমান ইতিহাসে রিপাবলিককে রক্ষার জন্য জুলিয়াস সিজারকে সিনেটে হত্যার পিছনে সবচেয়ে বেশি যার

ঘোরলাগা জ্যোৎস্নায় মায়াময় কিংবদন্তী

হুমায়ূন আহমেদ

মোহাম্মদ ফয়সাল হাসান: হুমায়ুন আহমেদ কেবল পড়িনি… গিলেছি! হিমুর সাথে রাত-বিরাতে অন্ধকার পথে নেমেছি। ভাতের রেস্তোরায় মধ্য রাতের পর বেঁচে যাওয়া ভাত, টক হয়ে যাওয়া ডালের সাথে অমৃতের মত খেয়েছি। কিংবা বিরিয়ানীর দোকানে শেষরাতের টক টক বিরিয়ানি চিবিয়েছি এমনভাবে যেন রাজভোগ! অথবা মিসির আলীর সামনে ঘণ্টার পর ঘণ্টা বসে থেকে বোঝার

কাতালোনিয়ার স্বাধীনতার সূর্য ও ভবিষ্যৎ

কাতালোনিয়ার স্বাধীনতার সূর্য ও ভবিষ্যৎ

নাজমুন নাহার তুলি: নিজস্ব ভাষা, সংস্কৃতি, আইনব্যবস্থা, নিজেদের পার্লামেন্ট, সবমিলে একটি স্বতন্ত্র অংশ; ভালই তো রয়েছে কাতালানরা। এরপরেও কেন দরকার স্বাধীনতার? কিসের নেশায় মত্ত কাতালোনিয়ানরা ছুটছে স্বাধীনতার পেছনে? স্বাধীনতার উন্মেষ: কাতালোনিয়ানরা নিজেদের স্পেনের নিপীড়িত জনগোষ্ঠি বলে মনে করে। যদিও তারা সবসময়ই স্বতন্ত্র বৈশিষ্ট্যে সমুজ্জ্বল। চিন্তা চেতনার স্বকীয়তায় আর তাদের চাওয়া পাওয়ার ওপর সরকারের

আমাদের ক্রিকেট সংস্কৃতি ও প্রশাসনিক দায়বদ্ধতা

নওরোজ কোরেশী দীপ্ত: হাল আমলের ঘটে যাওয়া যে কোন ইস্যু নিয়ে-আলোচনা-সমালোচনা করতে আমাদের কোন জুড়ি নেই। সমালোচনা অবশ্যই ভাল ব্যাপার, তা ব্যক্তি-প্রতিষ্ঠান ও সার্বিক উন্নয়নের পথ তৈরি করে। কিন্তু আমরা আসলে ইস্যুগুলোকে কতগুলো দৃষ্টিকোণ থেকে বিচার করছি, সে প্রশ্ন রয়ে যায় আমাদের আলোচনা-সমালোচনার ফাঁকফোকরে। সম্প্রতি রোহিঙ্গা ইস্যুর কথাই ধরা যাক, আমাদের সামনে

‘এইম ইন লাইফ’ যখন একটা ভাল বিয়ে

মহসিনা আফরোজ ইলা: আমাদের সময়ে ছোটবেলায় মোটামুটি সবাইকে সবচেয়ে বেশিবার যে প্রশ্নের মুখোমুখি হতে হয়েছে সেটা হচ্ছে, বড় হয়ে কী হতে চাও? আমার নিজের কাছে এটা খুব জটিল প্রশ্ন লাগত। আমি অনেক ভেবেও ঠিক করতে পারতাম না, আমি আসলে কী হতে চাই। আমার বলতে ইচ্ছে করত, কিছুই হতে চাই না। ভয়ে

ধর্ষকের মনোজগত ও নারীর পোশাক

ধর্ষকের মনোজগত ও নারীর পোশাক ১

সহুল আহমদ: ধর্ষণ কি এবং কেন হয়? এই নিয়ে আমাদের প্রচুর একাডেমিক আলোচনা আছে, আমি ওইদিকে আপাতত যাব না। আলোচনা করব মূলত বহুল প্রচলিত এক ‘ধারণা’কে (অনেকের কাছে বিশ্বাস) কেন্দ্র করে। দুঃখের বিষয় হচ্ছে, এই আলোচনা করার কোন প্রয়োজন থাকার কথা ছিল না আজকে, তবু করতে হচ্ছে। ধারণাটি হচ্ছে, ‘নারীর কাপড়-চোপড় ধর্ষককে

‘ধর্ম-রাষ্ট্র-জাত’ বেছে না নেয়া ছেলেটি

‘ধর্ম-রাষ্ট্র-জাত’ বেছে না নেয়া ছেলেটি

সারোয়ার তুষার: নয় বছরের একটা ছেলে শরীরে তিন তিনটি বুলেটের আঘাত বহন করেও দমে যায়নি । চোখের সামনে মা-বাবাকে নৃশংসভাবে খুন হতে দেখেও দমে যায়নি । কারণ তার একটা "জীবন" আছে, তার একটা "অস্তিত্ব" আছে । যে অস্তিত্ব দিয়ে সে নিজে তার ধর্ম-রাষ্ট্র-জাত বেছে নেয়নি । সীমানা বেছে নেয়নি । শুধু তো

আমি বলছি

প্রতিচ্ছবি মতামত

সোমা দত্ত: কোন কিছু বুঝে ওঠার আগেই, আমি ভ্রুণ হয়েছিলাম! কোন কিছু বুঝে ওঠার আগেই, আমি জন্মেছিলাম! কোন কিছু বুঝে ওঠার আগেই, আমি মেয়ে সন্তান হয়ে গেলাম! কোন কিছু বুঝে ওঠার আগেই, আমি বড় হয়ে উঠতে লাগলাম! কোন কিছু বুঝে ওঠার আগেই, আমি মেয়েমানুষ হয়ে গেলাম! কোন কিছু বুঝে ওঠার আগেই, আমি 'না'

বঙ্গবন্ধু ও বাংলাদেশ

১৯৭১ সাল রক্তারুন দিগন্ত লয়ে কাঁপছে উদয় উষার নব সূর্য রেখা। বঙ্গোপসাগরের তরঙ্গে যে নবজন্মের আর্তি, তার দিগন্ত প্রকম্পিত শব্দমালা ‘জয় বাংলা’ সেদিন ছিল বাঙালির কন্ঠে কন্ঠে। শিশুঘাতী নারীঘাতী, পাকসৈন্য ও দেশীয় দোসর রাজাকার, আল-বদর, আল-শামসদের বর্বরতার প্রতিরোধে এমন সম্মিলিত সংগ্রামের ইতিহাস নিজের বুকের রক্তে একমাত্র বাঙালিরাই লিখেছে। অহিংস গণ-অসহযোগ