আপনি আছেন
প্রচ্ছদ > বিজ্ঞান প্রযুক্তি > স্মার্টওয়াচ অপ্রয়োজনীয়: হুয়াওয়ে প্রধান

স্মার্টওয়াচ অপ্রয়োজনীয়: হুয়াওয়ে প্রধান

চলতি বছর স্পেনের বার্সেলোনায় অনুষ্ঠিত মোবাইল ওয়ার্ল্ড কংগ্রেস-এ প্রতিষ্ঠানের নতুন স্মার্টওয়াচ উন্মোচন করেছে হুয়াওয়ে। এবারই প্রথম নয় এর আগেও কয়েকটি স্মার্টওয়াচ বাজারে এনেছে প্রতিষ্ঠানটি। কিন্তু এবার প্রতিষ্ঠান প্রধান নিজেই এটিকে অপ্রয়োজনীয় বলে দাবি করেছেন বলে এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে বিবিসি।

চীনের শেনজেনে প্রতিষ্ঠানটির বিশ্লেষণা শীর্ষক সম্মেলনে এক প্রশ্নের জবাবে একথা বলেন শু। তাকে প্রশ্ন করা হয়, পরিধানযোগ্য প্রযুক্তির কারণে স্মার্টফোনের চাহিদা কমে যাচ্ছে কিনা?

জবাবে শু বলেন, “আমি কখনও বুঝতে পারিনি যখন আমাদের দরকার এমন সবকিছু ফোনে আছে, কেনো আমরা স্মার্টওয়াচ ব্যবহার করবো।”

হুয়াওয়ে’র পালাক্রমে দায়িত্ব পালন করা তিন প্রধানের একজন শু। প্রতিষ্ঠানটিতে এই তিনজনের প্রত্যেকে ছয় মাস প্রধান নির্বাহীর দায়িত্ব পালন করে থাকেন।

শু-এর বরাত দিয়ে ফোর্বস-এর প্রতিবেদনে বলা হয়, “আমি সে মানুষ নই যিনি ঘড়ি পড়েন। আর এই খাত নিয়ে আমি কখনও আশাবাদী ছিলাম না।”

তার এই মন্তব্যে বিস্মিত হওয়ার কিছু নেই। এর আগেও অনেকেই স্মার্টওয়াচ নিয়ে এমন মন্তব্য করেছেন।

বিবিসিকে পরামর্শদাতা প্রতিষ্ঠান সিসিএস ইনসাইট-এর বিশ্লেষক বেন উড বলেন, “বিপ্লবী পরিবর্তন আনার বদলে স্মার্টফোন আসলে একটা সমাধান যার সমস্যা খোঁজা হচ্ছে।”

শু-এর মন্তব্যেরও প্রশংসা করেছেন তিনি। “এটি হুয়াওয়ে’র তিনজন প্রধানের মধ্যে শুধু একজনের দৃষ্টিভঙ্গি।”

বর্তমানে এই বাজারে শীর্ষে রয়েছে অ্যাপল এবং স্যামসাং। আর বিলসী ঘড়ি নির্মাতা প্রতিষ্ঠানগুলোও এখন স্মার্টওয়াচ তৈরিতে নজর দিয়েছে। ২০১৭ সালকে স্মার্টওয়াচের জন্য গুরুত্বপূর্ণ মনে করেন উড। চলতি বছর বেশ কিছু স্মার্টওয়াচ উন্মোচন করা হবে বলে জানান তিনি।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করে আমাদের সঙ্গে থাকুন:

অনুরূপ সংবাদ

উপরে