আপনি আছেন
প্রচ্ছদ > আইন-মানবাধিকার > বাতিল হচ্ছে বিতর্কিত ৫৭ ধারা

বাতিল হচ্ছে বিতর্কিত ৫৭ ধারা

12a9b454acba18f20a779ef95e9ccde0-590ed931ef7d4প্রতিচ্ছবি প্রতিবেদক
তথ্য প্রযুক্তি আইনের ৫৭ ধারার অপব্যাবহার নিয়ে অসন্তুষ্ট খোদ আইন প্রনেতারাই। সাধারণ ও গণমাধ্যমের স্বাধীনতা হরণে প্রশ্নবিদ্ধ ও বিতর্কিত এ ধারাটি শিঘ্রই বাতিল হচ্ছে বলে জানিয়েছেন আইনমন্ত্রী আনিসুল হক।
রবিবার (৭ মে) সকালে হবিগঞ্জ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট ভবনের উদ্বোধন শেষে আইনমন্ত্রী ৫৭ ধারা ছাড়াও কথা বলেন কিবরিয়া হত্যা কান্ডের বিচার প্রসঙ্গ নিয়ে।
তিনি বলেন, ‘মানুষের ন্যায়বিচার নিশ্চিত করার জন্য তথ্য প্রযুক্তি আইনের ৫৭ ধারা বাতিল করে নতুন আইন সৃষ্টি করা হচ্ছে। ৫৭ ধারা নিয়ে বির্তক সৃষ্টি হয়েছে। বিতর্কে বলা হয়েছে জনগণের বাক স্বাধীনতা হরণ করা হয়েছে। সে কারণেই এ আইনটি বাতিল করা হচ্ছে। নতুন আইনে যাতে করে কাউকে অহেতুক হয়রানি করা না হয় সে ব্যবস্থা রাখা হবে।’
উপস্থিত সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী কিবরিয়া হত্যা প্রসঙ্গে বলেন, ‘কিবরিয়া হত্যাকা-ের বিচার কাজ চলছে। সে বিষয়ে মন্তব্য করা যায় না। ন্যায় বিচার নিশ্চিত করতে শিগগিরই এই বিচার কাজ শেষ করা হবে।’
এ সময় অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন হবিগঞ্জ-৩ আসনের এমপি অ্যাডভোকেট আবু জাহির, হবিগঞ্জ-২ আসনের এমপি অ্যাডভোকেট আব্দুল মজিদ খান, হবিগঞ্জ-৪ আসনের এমপি মাহবুবু আলী, মহিলা এমপি কেয়া চৌধুরী, জেলা প্রশাসক সাবিন আলম, জেলা ও দায়রা জজ মো. আতাবুল্লাহ, জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি অ্যাডভোকেট আফিল উদ্দিন, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার শামছুর রহমান ভূইয়া, প্রেসক্লাব সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা গোলাম মোস্তাফা রফি প্রমুখ। পরে তিনি জেলা পরিষদ মিলনায়তনে সুধী সমাবেশে অংশ নেন এবং দুপুরে জেলা আইনজীবী সমিতি আয়োজিত সংবর্ধনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে অংশ গ্রহণ করেন।
পরে মন্ত্রী জেলা পরিষদ মিলনায়তনে সুধী সমাবেশে অংশ নেন এবং দুপুরে জেলা আইনজীবী সমিতি আয়োজিত সংবর্ধনা সভায় যোগ দেন।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করে আমাদের সঙ্গে থাকুন:

অনুরূপ সংবাদ

উপরে