আপনি আছেন
প্রচ্ছদ > আন্তর্জাতিক > এখনো সরানো হচ্ছে দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের অবিস্ফোরিত বোমা

এখনো সরানো হচ্ছে দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের অবিস্ফোরিত বোমা

১৯ : ৩৩, ৭ মে, ২০১৭

germany2

জার্মানির হ্যানোভার শহরের বিভিন্ন স্থানে দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধে অবিস্ফোরিত ৫টি বোমা নিস্ক্রিয় করা হয়েছে। এ কারণে শহরের ৫০ হাজার বাসিন্দাকে সরিয়ে নেয়া হয়।

রোববার স্থানীয় সময় সকাল নয়টা থেকে এলাকা ছেড়ে সরতে শুরু করেছেন বাসিন্দারা। বোমা নিস্ক্রিয়কারী দল ১৩টি সন্দেহভাজন বস্তু পেলেও পরে পাঁচটি বোমা পাওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেছে। নিরাপত্তার জন্য শহরের ক্লিনিক, কারখানা, আবাসিক বাসাগুলো থেকে মানুষদের বেরিয়ে যেতে সহায়তা করে স্বেচ্ছাজীবী বিভিন্ন সংগঠন।

বোমা নিস্ক্রিয়ের জন্য শহরের বিদ্যুৎ ও গ্যাস সংযোগ বিচ্ছিন্ন করা হয়। পাশাপাশি ওই এলাকা দিয়ে ট্রেন ও ট্রাম চলাচল বন্ধ রাখা হয়। বাসিন্দাদের জন্য সরকারের পক্ষ থেকে জাদুঘর পরিদর্শন, শিশুতোষ সিনেমা ও নানা রকম খেলাধুলার আয়োজন করা হয়েছে। সন্ধ্যা নাগাদ বাসিন্দারা শহরে ফিরতে পারবেন বলে জানিয়েছে কর্তৃপক্ষ।

জার্মানিতে এমন বোমা পাওয়ার ঘটনা এই প্রথম নয়। ১৯৪৫ সালে দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধ শেষ হলেও ৭০ বছর ধরে মাটির নিচে এসব বোমা অবিস্ফোরিত অবস্থায় ছিল। গেলো ডিসেম্বরে আউসবার্গ শহরে প্রায় দুই টনের একটি বোমা উদ্ধার করা হয়। সেসময় শহরের ৫৪ হাজার বাসিন্দাকে অন্যত্র সরিয়ে নেয়া হয়। এর আগে ২০১৫ কোলন শহরে ১ টন বোমা ও ২০১১ সালে কোবলেনজ শহরের নদীগর্ভ থেকে দুটি বোমা উদ্ধার করা হয়। এছাড়া ২০১২ সালে মাটি খুড়তে যেয়ে এক নির্মাণ শ্রমিক নিহত হয়। ২০১০ সালে বোমার আঘাতে বোমা নিস্ক্রিয়কারী তিন সদস্যের মৃত্যু হয়েছে।

দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের শেষের দিকে ব্রিটিশ ও মার্কিন বোমারু বিমান জার্মানির বিভিন্ন শহরে বোমা হামলা চালিয়েছিল। এখনো অসংখ্য বোমা অবিস্ফোরিত অবস্থায় জার্মানির বিভিন্ন স্থানে ছড়িয়ে রয়েছে বলে আশঙ্কা বিশেষজ্ঞদের।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করে আমাদের সঙ্গে থাকুন:

অনুরূপ সংবাদ

উপরে